Main Menu

আফগানিস্তানে শান্তি চাইছে ক্লান্ত তালেবান

অনেক হয়েছে যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা। এবার চাই ছুটি চাই। শরীর জুড়ে গ্রাস করেছে একরাশ ক্লান্তি।

দীর্ঘ ১৭ বছর পরে যুদ্ধবিরতি পর এমনই ভাবছে আফগানিস্তানের তালেবানেরা। ওই দেশের প্রশাসনের পক্ষ থেকে তালেবানদের এই বক্তব্য সংবাদমাধ্যমের সামনে নিয়ে আসা হয়েছে।

আফগান সরকারের পক্ষ বলা হয়েছে যে প্রশাসনিক কর্তারা তালেবান শীর্ষনেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। সেই বৈঠকেই তালেবান নেতারা নিজেদের ক্লান্তির কথা জানিয়েছেন। এই মুহূর্তে তারা শান্তি চায়। আর সেই কারণেই এবার তারা যুদ্ধ থেকে বিরতি চাইছে।

সংবাদ মাধ্যম টোলো নিউজের প্রতিবেদন অনুসারে, আফগানিস্তানের নাঙরাহার প্রদেশের গভর্নর হায়াতুল্লা হায়াত বলেছেন, ‘এটা খুবই ভালো খবর যে তালেবান শীর্ষ নেতারা তাদের অনুগামীদের নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করেছে। দেশে শান্তি স্থাপনে তাদের বার্তা এবং দাবি সমাজের সকলের কাছে পৌঁছাবে।’

ইদ উপলক্ষে বেশ কিছুদিন যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল আফগান প্রশাসন। একই পদক্ষেপ নিয়েছিল তালেবানেরাও।

আফগান প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা হওয়ার পরে প্রায় ৩০ হাজার তালেবান যোদ্ধা নিজেদের বাড়িতে গিয়েছিল ইদ পালন করতে। তাদের অনেকেই পরে আর যুদ্ধক্ষেত্রে ফিরে যায়নি।

দেশের অনেক জায়গায় তালেবানেরা নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছে বলে রিপোর্ট পেশ করেছে ওই দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। তালেবানদের এই পরিস্থিতির কথা প্রকাশ্যে এসেছে আফগান রাষ্ট্রপতি আশরাফ ঘানি-র যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পরে।

পবিত্র রমজান মাসে তালেবানদের পক্ষ থেকেও যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল। এর আগে ২০০১ সালে ইদের সময় যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল তালেবানেরা।

দীর্ঘদিন যুদ্ধের জেরে ক্লান্ত হয়েই আপাতত শান্তির পথ খুঁজছে তালেবানেরা। এমনই জানিয়েছেন তালেবান কমান্ডার হাজরাতুল্লা।

তার কথায়, ‘আমরা খুব ক্লান্ত। দেশের জন্য লড়াই করেছি বা বিদেশি শক্তির বিরুদ্ধে লড়েছি, সে যেটাই হোক না কেন এই মুহূর্তে আমরা খুব ক্লান্ত।’

কথার শেষে তালেবান কমান্ডার ফের একবার বলেছে, ‘আমরা সত্যিই খুব ক্লান্ত।’






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.