Main Menu

প্যারিসে বিজয় দিবস ও মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা স্মারক প্রদান

তাইজুল ফয়েজ, ফ্রান্স থেকে:
জাতির সূর্য সন্তান বীর মুক্তিযোদ্বাদের স্মরণের মধ্যেদিয়ে ফ্রান্সে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশিদের উপস্থিতিতে বিজয় দিবস উৎযাপিত হয়েছে।
শনিবার (১৬ই ডিসেম্বর) বিকাল ৩ ঘটিকার সময়
প্যারিসের বলরুমে বিজয় দিবস উদযাপন পরিষদ ফ্রান্স উদ্যোগে সংগঠনটির সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহর সভাপতিত্বে ফ্রান্স আওয়ামিলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এমদাদুল হক স্বপন ও এটিএন বাংলার ফ্রান্স প্রতিনিধ দেবেশ বড়ুয়ার যৌথ
পরিচালনায় অনুষ্টানের প্রথম পর্বে ছিল আলোচনা ও মুক্তিযোদ্বাদের সম্মাননা প্রদান।
যাঁদের কারনে লাল সবুজের পতাকা সেই মুক্তিযোদ্বাদের সম্মান প্রদর্শন করে প্যরিসে অবস্থানরত বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন ও নৌ কমান্ড বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হকের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলেদেন সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহ ইনু ।
এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্বা নৌ কামান্ডো এনামুল হক ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কাশেম , বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশন তুলুজ এর সভাপতি ফখরুল আকম সেলিম, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহজাহান শারু, সহ-সভাপতি সুব্রত ভট্টাচার্যের শুভ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফ্রান্সের সেক্রেটারি জেনারেল আশরাফুল ইসলাম, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলী আজম খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ হায়দার, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাহিন আরমান চৌধুরী,বাংলাদেশ আওয়ামী ধর্ম বিষয়ক উপকমিটির সদস্য আলী হোসেন ।
সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের উপযায় আমার প্রচার সম্পাদক মনসুর আহমেদ,দপ্তর সম্পাদক আসাদুজ্জামান সুমন, কার্যনির্বাহী সদস্য ওয়াই রিয়াদ,কামাল পাশা, ওদুদ খান, কামাল শিকদার,
তারিকুল ইসলাম,আতাউর রহমান, মোহাম্মদ জালাল, মোহাম্মদ কাশেম, মোহাম্মদ প্রিন্স, তারেক শিকদার, মোহাম্মদ আলী, মুজাহিদুল ইসলাম সহ আরও অনেক।
এ সময় বক্তারা বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে আমরা অর্জন করেছি বাংলার স্বাধীনতা, এই স্বাধীনতার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করা আমাদের সকলের নৈতিক দায়িত্ব। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে প্রবাসীরা যেভাবে অবদান রেখেছেন, দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতিতে আমাদের অংশীদারিত্ব বাড়াতে হবে। আজ দু’জন মুক্তিযুদ্ধার হাতে আমরা সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়ার মাধ্যমে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানিত করেছি। প্রবাসে যারা মুক্তিযুদ্ধা অবস্থান করছেন, তাদের খোঁজখবর আমাদের নিতে হবে এবং তাদেরকে যথাসাধ্য সম্মানিত করতে হবে, এটা আমাদের উপর অর্পিত পবিত্র দায়িত্ব।






Related News

Comments are Closed