Main Menu

প্যারিসে ” উন্নত বিশ্বে ভাষা- সংস্কৃতির আদান- প্রদানে আমাদের ভূমিকা ” শীর্ষক আলোচনা

নাজমুল হক : ইউরো বাংলা প্রেসক্লাব ফ্রান্সের উদ্যোগে শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতির তীর্থভূমি ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘উন্নত বিশ্বে ভাষা – সংস্কৃতির আদান-প্রদানে আমাদের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা।বুধবার (৯ আগস্ট) বিকালে ইউরো-বাংলা প্রেসক্লাব ফ্ৰান্সের উদ্যোগে প্যারিসের ক্যাথসীমা শাহজালাল হল রুমে

সংগঠনের সভাপতি এটিএন বাংলা ইউকে ফ্রান্স প্রতিনিধি তাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মইনুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন আর টিভি ফ্রান্স প্রতিনিধি তাইজুল ফয়েজ।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন লিডিং ইউনিভার্সিটি প্রফেসর অ্যাডভোকেট রাশেদুল ইসলাম, প্রধান আলোচক বাংলাদেশ কমিউনিটি এসোসিয়েশন ফ্রান্সের সভাপতি চৌধুরী সালেহ আহমদ, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচার্য শুভ, একুশে উদযাপন পরিষদ ফ্রান্সের সদস্য সচিব এমদাদুল হক স্বপন, এ্যাসাইলাম এন্ড ইমিগ্রান্ট সলিউশন সংস্থা’র পরিচালক ওবায়দ উল্লাহ কয়েস, লিগাল এইডের সভাপতি এ কে এম আজাদ, ফ্রান্স বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সহ-সভাপতি মাহবুবুল হক কয়েস, হুমায়ুন কবির তারেক।
পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, বক্তব্য রাখেন
দৈনিক প্রতিদিনের বাংলাদেশ এর ফ্রান্স প্রতিনিধি আহমদ সাবুল,কেন্দ্রীয় কমিটির সংগঠনিক সম্পাদক আইটি এক্সপার্ট জাবের আহমদ, নির্বাহী সদস্য পরিবেশবাদী সাংবাদিক শেখ এমরান, মাই টিভি ফ্রান্স প্রতিনিধি বাদল পাল, গাজী টিভি ফ্রান্স প্রতিনিধি মিজানুর রহমান, দৈনিক বাংলাদেশের আলো ফ্রান্স প্রতিনিধি কবি সুহেল আহমদ,সিলেট সদর উপজেলা অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্সের সিনি.সহ-সভাপতি বেলাল আহমদ,সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমদ, যুবনেতা শাহেদ আহমদ,জাহাঙ্গীর আলম, দিলওয়ার খান,নতুন প্রজন্মের প্রিয় মুখ রাশেদ আহমদ, আবু তালিব, শেনাম আহমদ, আব্দুল হাদি ফাহিম,আমিনুল ইসলাম হাসান, মাহদি বেলাল, ময়নুল ইসলাম, ইব্রাহিম সহ শত প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থিতিতে প্রাণবন্ত হয়ে উঠে অনুষ্ঠান।
সভায় প্রধান অতিথি রাশেদুল ইসলাম বলেন, মূলতঃ মানুষ যা ধারণ করে এক কথায় তাই সংস্কৃতি। জন্মগতভাবে কোনো মানুষ ভাষা ও সংস্কৃতি নিয়ে জন্মগ্রহণ করে না। সামাজিক ও পারিবারিকভাবে ভাষা ও সংস্কৃতি শিখে থাকে; যা সময়ের ধারাবাহিকতায় উন্নতির বিকাশ ঘটে। আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে এ ধারাটিও কালের আবর্তে হারিয়ে যায়। ভাষা ও সংস্কৃতির
প্রসার তথা বিকাশনে তা ধারণ-লালন এবং চর্চার একান্ত প্রয়োজন।
তিনি বলেন, ভাষা ও সংস্কৃতি বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার জন্য আমাদেরকে বিভিন্ন দেশের মানুষের সঙ্গে আন্তরিকভাবে মিশতে হবে, ভাষা বিনিময় করতে হবে।
এজন্য রাষ্ট্র ও সরকারের পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। বিশেষ করে বাংলাদেশি কৃষ্টি-কালচার ও খাবারের সাথে বিদেশিদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া এবং তাদের কাছে আমাদের দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য তুলে ধরতে হবে।
আয়োজিত সভায়, শোকাবহ ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের নিহত সদস্য ও একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ এবং ৫২’র ভাষা আন্দোলনে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।






Related News

Comments are Closed