Main Menu

সিলেট জেলা এসোসিয়েশন ইন স্পেনের অভিষেক

 

  1. সিদ্দিকুর রাহমান, স্পেন থেকেঃ স্পেনে নবগঠিত সিলেট জেলা অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন এর পূর্ণাঙ্গ কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২ আগষ্ট) রাতে মাদ্রিদের বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন এর হলরুমে আয়োজিত এ অভিষেক অনুষ্ঠানে স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
    সিলেট জেলা অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন এর নবগঠিত কমিটির সভাপতি তামিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ছানুর মিয়া ছাদ ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবির রিগ্যানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে নবগঠিত কমিটির সদস্যদের পরিচয় ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অভিষিক্ত কমিটির সদস্যরা নিজেদের মধ্যে ঐক্য অটুট রেখে কমিউনিটির উন্নয়নে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সিলেট জেলা তথা বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে অংশগ্রহণের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন এর সভাপতি আল মামুন। এছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি এস আর আই এস রবিন, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি জামাল উদ্দিন মনির, বৃহত্তর কুমিল্লা অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নূর হোসেন পাটোয়ারি, দক্ষিণ বঙ্গের সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন মনু, আল ইসলাহ স্পেন শাখার সভাপতি মাওলানা আসাদুজ্জামান রাজ্জাক, গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল মোজাক্কির, ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি ফজলে এলাহী, নারায়নগঞ্জ জেলা অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একরামুজ্জামান কীরন, ফরিদপুর কল্যাণ সমিতির সাবেক সভাপতি হেমায়েত খান, স্পেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিজভী আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল কামালী, গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সদস্য সচিব আবু জাফর রাসেল, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তার হোসেন, সিলেট জেলা অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেনের সিনিয়র সহ সভাপতি আহমেদ আছাদুর রহমান ছাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুর রহমান লিটন, কাওসার হোসাইন টিপু, এমাল হোসেন, বিল্লাল হোসেন, ইউসুফ আলী, বেলাল আহমদ, হারুন মিয়া, রাজা আহমেদ, রিপন মিয়া প্রমূখ। বক্তারা নব গঠিত সিলেট জেলা অ্যাসোসিয়েশনের সকল সদ্যসদের অভিনন্দন জানান এবং প্রবাসে বাংলাদেশের সম্মান অক্ষুণ্ন রাখতে সম্মিলিত ভূমিকা রাখার অনুরোধ জানান। এসময় সিলেট জেলা অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদেরকে প্রথমেই নিজেদের স্বাবলম্বী করা এবং পরবর্তীতে কমিউনিটির সেবোয় নিয়োজিত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। রাতের খাবার আপ্যায়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সমাপ্তি হয়।





Related News

Comments are Closed