Main Menu

ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

 

কারিগরি বোর্ডের অধীনে নার্সিং কোর্স বন্ধের দাবি

নার্সিং শিক্ষা ধ্বংসের মাধ্যমে জনগণের স্বাস্থ্যসেবা ধ্বংসের ষড়যন্ত্র রুখতে ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে নার্র্সিং কোর্স বন্ধের দাবিতে নগরীতে বিশাল মানববন্ধন করেছে স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন সিলেট নার্সিং কলেজ। বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রয়ারি) মানববন্ধন শেষে তারা সিলেট জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন।   স্মারকলিপিতে তারা উল্লে­খ করেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও নার্সদের পক্ষে কথা বলেছেন। ঠিক তেমনি- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও নার্সদের উন্নয়নে তাদের সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করছেন। বাংলাদেশে স্বাস্থ্যসেবা এগিয়ে নিতে নার্সরা প্রধান হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী প্রতিবছরই নতুন করে নার্সদের নিয়োগ দিচ্ছেন। গত ২০১৬ সালে রেকর্ড গড়েছেনRead More


‘দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতায় নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ দাবি’

দায়িত্ব পালনে ন্যাক্কারজনক ব্যর্থতার দায় নিয়ে নির্বাচন কমিশনকে অনতিবিলম্বে পদত্যাগের দাবি করেছেন ভোটাধিকার ও সুশাসনে জাতীয় ঐক্য।   বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সংগঠনটির আহ্বায়ক আ ব ম মোস্তাফা আমীন ও সদস্য সচিব অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুল বাতেন এক যুক্ত বিবৃতিতে এ কথা বলেন।   বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘নির্বাচনে অংশগ্রহণে জনগণ আগ্রহী না হলে নির্বাচন কমিশনের কিছু করার নেই’ মর্মে জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার মন্তব্য দেশপ্রেম ও দায়িত্বজ্ঞান বিবর্জিত।       বিবৃতিতে বলা হয়, বর্তমান নির্বাচন কমিশন নিয়োগ পাওয়ার পর থেকে যে কয়টি ইউপি,Read More


কুলাউড়ার টিলাগাঁও সড়কের বেহাল দশা

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাঁও ইউনিয়নের টিলাগাঁও-গুদামঘাট বাজার সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে বেহাল হয়ে পড়েছে। ৬ কিলোমিটার সড়কের ৩ কিলোমিটার পাকা হলেও বাকী ৩ কিলোমিটার কাচা থাকায় বর্ষাকালে খানা-খন্দক সৃষ্টি হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ফলে অত্রাঞ্চলের ছয়টি গ্রামের প্রায় ১২ হাজার মানুষকে দীর্ঘদিন যাবৎ চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বর্ষা মৌসুমের আগে সংস্কার করা না হলে রাস্তাটি সম্পূর্ণ চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়বে।   কুলাউড়া উপজেলার সড়ক পথে যোগাযোগের একমাত্র রাস্তা হচ্ছে টিলাগাঁও-গুদামঘাট বাজার রাস্তাটি। এ রাস্তাটি পাকাকরণের জন্য দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকাবাসী স্থানীয় জন প্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসন, এমপি ও মন্ত্রীর কাছে বারRead More


ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার ঘোষণা ইমরান খানের

শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে আটক ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে শুক্রবার ফেরত দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বৃহস্পতিবার দেশটির পার্লামেন্টে যৌথ অধিবেশনে এই ঘোষণা দেন।   এর আগে বুধবার কাশ্মীরে অনুপ্রবেশের অভিযোগে গুলি চালিয়ে পাকিস্তানি দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করে পাকিস্তান। এর মধ্যে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে একটি এবং অপরটি ভারতে ভূপাতিত হয়। পাক-কাশ্মীরে ভূপাতিত হওয়ার উত্তেজিত জনতার হাত থেকে ভারতীয় ওই পাইলটকে উদ্ধার করে পাকিস্তান সেনাবাহিনী।   বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনে ভারতকে আর উত্তেজনা না বাড়ানোর আহ্বান জানিয়ে ইমরান খান বলেন, এটাকে আর সামনে এগিয়ে নেবেন না, তাহলে পাকিস্তানRead More


যে ৭ টি ভারতীয় সিনেমা আজও নিষিদ্ধ

এই ছবিগুলো ভারতীয় চলচ্চিত্রকে এক অন্য মাত্রায় নিয়ে গিয়েছে। সমাজ-চেতনা থেকে বাস্তব জীবনের সমস্যাকে তুলে ধরতে এই সিনেমাগুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু, এমন সব ছবিকে নিষেধের বেড়াজালেই আটকে রেখেছে সেন্সর বোর্ড। একনজরে এমনই ৭টি ছবি।   ১. আন–ফ্রিডম : লেসবিয়ানদের কাহিনী নিয়ে এই ছবি। মেয়ে ‘লেসবিয়ান’ জেনে বাবা থানার দারাগোকে দিয়েই মেয়েকে ধর্ষণ করান। জ্বলন্ত এক সামাজিক সমস্যা নিয়ে এই ছবি। ছবির পরিচালক রাজ অমিত কুমার। অভিনয় করেছিলেন ভিক্টর ব্যানার্জি, আদিল হুসেন এবং প্রীতি গুপ্ত।   ২. মোল্লা আসি : বারানসি শহরে কীভাবে বিদেশি পর্যটকদের ঠকানো হয়। সেই নিয়ে এই ছবি।Read More


বাংলাদেশের যুদ্ধবিমান !! এবার ব্যাপক পরিবর্তন আসছে যুদ্ধবিমান মিগ-২৯


সাহিত্য হলো মানবচিন্তার বহুবর্ণিল প্রকাশ

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস নিয়ে আমরা কিছু প্রশ্ন রেখেছিলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের দুইজন শিক্ষকের কাছে। তারা হলেন অধ্যাপক সৌমিত্র শেখর ও সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আজম। দুজনকে একই প্রশ্ন করা হয়েছিল। তাঁরা নিজেদের ভাবনাগুলো প্রকাশ করেছেন। এখানে পড়ুন ড. সৌমিত্র শেখরের সাক্ষাৎকার। ১. বিগত শতাব্দীর পঞ্চাশের দশকে ভিত্তিটি তৈরি হয় এভাবে এবং ষাটের দশকে ঘটে যায় সাংস্কৃতিক নীরব বিপ্লব। আর এর ওপর ভিত্তি করেই হয় মহান মুক্তিযুদ্ধ। ফলে বলা চলে, ১৯৫২-তে রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন বিলম্বিত হলে বা না হলে পাকিস্তানবাদী সাহিত্য-সংস্কৃতির ক্লীব ধারাটি আরও প্রলম্বিত হতো এবং তাতে সার্বিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতো বাঙালিRead More


নিপাখি হয়ে বাঁচবে তুমি মানুষ?

যুদ্ধদিনে মানুষের মৃত্যু সহজ ও সওয়া হয়ে যায়। কোনো যুদ্ধ চলছে না দেশে, তবু শত মানুষ পুড়ে কিংবা হাজার মানুষ ভবনধসে মারা যাচ্ছে। লাগাতার। ঘটনার ধাক্কায় চেতনা অবশ হয়ে যাওয়ার জোগাড়। আর মানুষ আমরা, সৃষ্টির সেরা জীব আমরা ‘মান-উষ, মান-উষ’ করে মুখটা সরু করে ফেলেছি। আর মনটাকে পাথর। কয়েক দিনের ঝড়ে নড়াইলের হাজারো পাখি মারা গেল। শিলাবৃষ্টি ধান, ফল ও পাখিদের মস্ত বড় এক ঘাতক। গত কালবৈশাখীতে মেঘনায় দেখেছি, কীভাবে কালো পানকৌড়িরা শিলাবৃষ্টি থেকে বাঁচতে প্রাণপণ পাখা ঝাপটাচ্ছে। তারপর কোনো একটা শিলা হয়তো মাথায় বা ডানায় লাগল, পাখিটা টুপ করেRead More


মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে এরিকসনের ঘোষণা

আজিয়াটা গ্রুপ বারহেডের অ্যাপিগেট প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে এরিকসনের প্রি-ইন্টিগ্রেশন চার্জিং সিস্টেম একীভূত হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে এরিকসন কর্তৃপক্ষ। অ্যাপিগেট হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম ইন্টারফেস (এপিআই) ইকোসিস্টেমের নতুন প্রযুক্তি, যা দ্রুত ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধির ক্ষেত্রে একটি নিরাপদ ও বাধাহীন প্ল্যাটফর্ম।   বার্সেলোনায় চলমান মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এমডব্লিউসি) এ ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। ২৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এমডব্লিউসি ২০১৯ নামের তথ্যপ্রযুক্তির এ আয়োজন।   এমডব্লিউসি ২০১৯-এ ৫-জি বা পঞ্চম প্রজন্মের ব্যবসায়িক সুযোগের পাশাপাশি সেবাদানকারীদের ব্যবসা ও গ্রাহক অভিজ্ঞতার বিভিন্ন তথ্য প্রদর্শন করছে এরিকসন কর্তৃপক্ষ।   এরিকসন কর্তৃপক্ষ বলছে, লক্ষ্যভিত্তিক এপিআই মাইক্রো সার্ভিসেস অ্যাক্সিলেরেটরেরRead More


বিএনপি এলে নির্বাচনটা আরও ভালো হতো : ভোট দিয়ে আতিকুল

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে ভালো হতো বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।   বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় উত্তরার নওয়াব হাবিবুল্লাহ মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ১২ নম্বর কেন্দ্রে ভোট প্রদান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন মস্তব্য করেন। এসময় তার স্ত্রী ও কন্যা সঙ্গে ছিলেন।   বিএনপি এ নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় নির্বাচন কতটুকু প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে? -সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে আরেকটা দল থাকলে এ নির্বাচন আরও অংশগ্রহণমূলক হতো। যদি তারা আসতো তাহলে নির্বাচনটা আরও ভাল হতো।’    Read More