প্রচ্ছদ

কোলো–বিউটিদের হাসপাতালে এক দিন…

Eurobanglanews24.com

গাড়ি থেকে কোলে করে নামানো হলো ঐশীকে। পেটের পাশের কাটা দাগ দেখে বোঝা যাচ্ছে সদ্য অস্ত্রোপচার হয়েছে। বেশ কিছুক্ষণ পরে ঐশীকে দেখা গেল পুরো গায়ে ব্যান্ডেজ করা অবস্থায়। ড্রেসিং শেষে সুরক্ষা হিসেবে বেশি জায়গাজুড়ে ব্যান্ডেজ করা হয়েছে। বিউটির যেকোনো মুহূর্তে বাচ্চা হবে। পানি ভেঙে যাওয়ায় তড়িঘড়ি করে বিউটিকে নিয়ে আসা হয়েছে হাসপাতালে। তার অবস্থা সম্পর্কে আল্ট্রাসনোগ্রাম করে নিশ্চিত হতে পারবেন চিকিৎসকেরা। আল্ট্রাসনোগ্রামের জন্য প্রস্তুত করার সময় ভয়ে চোখ দুটো যেন বিস্ফোরিত হচ্ছিল বিউটির।

 

এসব দৃশ্য পোষা পশুপাখির হাসপাতালের। ঢাকার ফার্মগেট থেকে প্রায় ২১ কিলোমিটার দূরে পূর্বাচল নিউটাউনের ১৮ নম্বর সেক্টরে প্লট ৫বি, ১১৪ নম্বর রোডে গড়ে উঠেছে আধুনিক সুবিধাসমৃদ্ধ এই হাসপাতাল। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটির অধীনে ঢাকায় এই প্রথম গড়ে তোলা হয়েছে পেট হাসপাতাল। এর পূর্ণ নাম টিচিং অ্যান্ড ট্রেনিং পেট হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার।

 

পূর্বাচলের ৩০০ ফুট রাস্তা ধরে অতি পরিচিত নীলা মার্কেট পেরিয়ে একে-তাকে জিজ্ঞেস করে সহজেই পৌঁছানো গেল পেট হাসপাতালে। ৩০০ ফুটের দুই ধারের সবুজের সমারোহ আর পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর রাস্তা ধরে চলতে চলতে মূল সড়ক থেকে বাঁ দিকে নেমে সরু রাস্তা ধরে এগোতে হয়। একাধিক সাইনবোর্ডে হাসপাতালে পৌঁছানোর দিকচিহ্ন দেওয়া রয়েছে। শান্ত–নিরিবিলি পরিবেশে ২১ কাঠা জমির ওপর গড়ে তোলা একতলা ভবনটি যে নতুন, তা ঝকঝকে-তকতকে কক্ষগুলো দেখেই বোঝা যাচ্ছে। বড় গেট পেরিয়ে অভ্যর্থনাকক্ষের দরজা খুলতেই চোখে পড়ে সরু বারান্দার সঙ্গে সারি করে কয়েকটি কক্ষ। একটি কক্ষে ট্রলির ওপর শুইয়ে পারসিয়ান একটি বিড়ালকে পরীক্ষা করছিলেন ডা. আবদুল মান্নান। ছাইরঙা রোমশ সুন্দর মেয়ে বিড়ালটি কেমন যেন নির্জীব অবস্থায় পড়ে ছিল।

 

সমস্যা কী, তা জিজ্ঞেস করতেই বিড়ালটি কোলে নিয়ে থাকা যুবকটি জানালেন, এটি দুদিন ধরে কিছু খাচ্ছে না। পাশে ছিলেন একজন বয়স্ক ব্যক্তি। তিনি জানালেন, বিড়ালটির বয়স তিন বছর। তাঁর মেয়ে বান্ধবীর কাছ থেকে বিড়ালটি এনে পোষা শুরু করেন। মেয়ে কয়েক দিনের জন্য দেশের বাইরে গেছেন। এরপর থেকেই মনমরা হয়ে রয়েছে বিড়ালটি। দুদিন ধরে কিছু খাচ্ছে না। এ জন্য হাসপাতালে এসেছেন ডাক্তার দেখাতে। আবদুল মান্নান বিড়ালটিকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এক্স-রে করার জন্য পাশের কক্ষে পাঠিয়ে দিলেন। তাঁর অনুমান, মালিক বাসায় না থাকায় মানসিক কষ্ট থেকেই খাচ্ছে না বিড়ালটি। এরপরও শারীরিক কোনো সমস্যা রয়েছে কি না, তা নিশ্চিত হতে পরীক্ষা করছেন।

 

যারা পশুপাখি পোষেন, তাঁদের কাছে এরা হয়ে ওঠে পরিবারের সদস্যের মতো। তাই পরিবারের এই সদস্যদের সুস্থ রাখতে সচেষ্ট থাকেন পশুপ্রেমীরা। কোনো সমস্যা দেখা দিলে দ্বারস্থ হন চিকিৎসকের। কারও বিড়াল হয়তো খাচ্ছে না, কারও বিড়ালের বাচ্চা হওয়ার আগে জটিলতা তৈরি হয়েছে। অথবা কারও কুকুর দুর্ঘটনায় পড়েছে, অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন। এমন সব সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকেন পেট হাসপাতালের চিকিৎসক সহকর্মীরা। গত বছরের ২৮ অক্টোবর যাত্রা শুরু করার পর এ বছরের জুলাই মাস পর্যন্ত চিকিৎসার জন্য এখানে ২ হাজার ২৬৩ পোষা পশুপাখির নিবন্ধন করা হয়েছে। এর মধ্যে বিড়ালের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। গত জুলাই মাসে ৩১৫টি পোষা পশুপাখির চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে এর মধ্যে বিড়াল ২০০, কুকুর ১০০, কবুতর ৬টি, খরগোশ ২টি, পাখিসহ অন্য প্রাণী ৭টি । এ মাসের ২৭ তারিখ পর্যন্ত ১৭৫টি পশুপাখির চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০