প্রচ্ছদ

চশমা ব্যবহারকারীর জন্য ৭ পরামর্শ

Eurobanglanews24.com

অনেকে প্রয়োজনে চশমা পরেন, আবার অনেকে স্টাইল করতে অথবা অন্যান্য কারণে সানগ্লাস ব্যবহার করেন।

 

চোখের দৃষ্টি সংক্রান্ত সমস্যায় চিকিৎসক চশমা প্রেসক্রাইব করলে বাধ্য হয়ে চশমা পরতে হয়, অন্যথায় ঝাপসা পৃথিবী ঝাপসাই রয়ে যায়- অবশ্য চশমার বিকল্প ব্যবস্থাও রয়েছে। দেখা যায় যে, কারো কারো চশমায় ঘনঘন স্ক্র্যাচ পড়ে অথবা ইয়ারপিসগুলো লুজ হয়ে যায় কিংবা চশমা ভেঙে যায়। এর কারণ হলো, চশমাকে সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ না করা। এ প্রতিবেদনে চশমা ব্যবহারকারীর জন্য সাতটি পরামর্শ দেয়া হলো।

 

* চোখ থেকে চশমা খুলতে উভয় হাত ব্যবহার করুন

সিনেমায় আপনার প্রিয় ড্যাশিং হিরোকে স্টাইলিশ ভঙ্গিতে এক হাতে চশমা খুলতে দেখেছেন, কিন্তু বাস্তবে এমনটা করলে আপনার চশমার ইয়ারপিসগুলো ঢিলা হয়ে যেতে পারে অথবা এদের অবস্থানের পরিবর্তন হতে পারে, যার ফলে একসময় ফ্রেমটি মুখমণ্ডলে সঠিকভাবে খাপ খাবে না।

 

* সঠিক নিয়মে চশমা পরিষ্কার করুন

চশমার ক্লিনারে অ্যামোনিয়া বা অ্যালকোহল লাগিয়ে চশমা পরিষ্কার করবেন না, কারণ এসব হার্শ কেমিক্যাল আপনার লেন্সের আবরণকে ড্যামেজ করতে পারে। এর পরিবর্তে ডিশ সোপের দ্রবণ ও আঙুলের সাহায্যে চশমা বা সানগ্লাসকে হালকাভাবে ধুয়ে নিন। চশমার জন্য প্রস্তুতকৃত অতিসূক্ষ্ম তন্তুর কাপড় দিয়ে লেন্স শুকিয়ে নিন এবং এ কাজে কখনো টিস্যু, পেপার টাওয়েল অথবা অন্যান্য উড-বেসড ম্যাটারিয়াল ব্যবহার করবেন না, কারণ এগুলো স্ক্র্যাচ সৃষ্টি করতে পারে।

 

* সৈকতে বোতলের পানি দিয়ে চশমা পরিষ্কার করুন

সমুদ্র সৈকতে আপনার সানগ্লাস বা চশমা ঝাপসা বা বালুময় হয়ে গেলে সমুদ্রের পানি অথবা টাওয়েল দিয়ে তা পরিষ্কার করার প্রবণতা দমন করুন। লবণের স্ফটিক অথবা বালু আপনার লেন্সে দাগ ফেলতে পারে। তাই সমুদ্র সৈকতে চশমা পরিষ্কার করতে বোতলের পানি ব্যবহার করুন।

 

* অতিরিক্ত গরম স্থান থেকে চশমা দূরে রাখুন

গ্রীষ্মকালে গাড়ির ভেতর আপনার চশমা বা সানগ্লাস রাখবেন না। এছাড়া অন্যান্য অতিরিক্ত গরম স্থানেও চশমা রাখবেন না। আজকাল বেশিরভাগ চশমা এমন উপাদান দিয়ে তৈরি যা অত্যধিক তাপমাত্রায় গলে যেতে পারে অথবা অধিক নমনীয় হতে পারে।

 

* মাথার ওপর চশমা পরবেন না

মাথার ওপর চশমা রাখা সুবিধাজনক মনে হতে পারে অথবা স্টাইলিশ দেখাতে পারে, কিন্তু এতে ইয়ারপিসগুলো ঢিলা হওয়ার ঝুঁকি থাকে। এছাড়া আপনার চুল ও মাথার ত্বকের প্রাকৃতিক তেল চশমাকে অস্পষ্ট করতে পারে অথবা লেন্সকে প্রভাবিত করতে পারে।

 

* চশমার পিছলে পড়া থামান

যদি আপনার চশমা স্লিপ করে নাকের ওপর চলে আসে, তাহলে ওয়েডগিসের মতো ক্লথ ম্যাটারিয়াল ব্যবহার করুন যা চশমার ইয়ারপিসগুলোর শেষাংশে লাগালে পিছলে পড়া থেমে যাবে ও চশমা সঠিক অবস্থানে থাকবে। আরেকটি উপায় হলো, মধুর মোম ও নারকেল তেলের মিশ্রণ সরাসরি চশমার ব্রিজে ব্যবহার করলে চশমা স্লিপ খাবে না। চশমার অবস্থান আরো দৃঢ় করতে অয়্যার টিউবিং ব্যবহারের জন্য কোনো অপটিশিয়ানের সঙ্গে কথা বলতে পারেন।

 

* চশমার লেন্সকে কোনো পৃষ্ঠের স্পর্শে রাখবেন না

আপনি হয়তো এ পরামর্শটি আগে শুনেছেন, কিন্তু এখনো সচেতন না হয়ে থাকলে এ বিষয়ে গুরুত্ব দেয়ার সময় হয়েছে, কারণ লেন্সকে কোনো পৃষ্ঠের সংস্পর্শে রাখলে মারাত্মক স্ক্র্যাচ সৃষ্টি হতে পারে। যদি আপনার চশমার জন্য হার্ড কেস না থাকে, তাহলে আজই একটা কিনে নেওয়ার কথা বিবেচনা করুন।

 

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০